বনগাঁর বিধায়ক স্বপন মজুমদার বললেন স্নাতক হওয়ারও ইচ্ছা আছে, এবারে তিনি উচ্চমাধ্যমিকে বসলেন

বিরোধীরা প্রচুর সময়ই সিলেক্টেড প্রতিনিধির শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণকে রাজনীতির অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করেন। কিন্তু বিধায়ক হওয়ার পরেও নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা বাড়িয়ে নেওয়ার ইচ্ছা বা প্রয়াস সচরাচর দেখা যায় না। বনগাঁর বিজেপি বিধায়ক তেমনই এক উদাহরণ রাখলেন।

Sep 14, 2023 - 16:13
 0  12
বনগাঁর বিধায়ক স্বপন মজুমদার বললেন  স্নাতক হওয়ারও ইচ্ছা আছে, এবারে তিনি উচ্চমাধ্যমিকে বসলেন

ভারতে জনপ্রতিনিধিদের নির্বাচনে দাঁড়ানোর জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতার কোনওরকম মাপকাঠি নেই। সেই কারণেই ন্যুনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকা সত্ত্বেও বিধায়ক (BJP MLA) বা মন্ত্রী হওয়া হতে আটকায় না ইলেকশনে বিজয়ী প্রার্থীদের। আবার নির্বাচন কমিশনের কাছে শিক্ষাগত যোগ্যতার (higher secondary exam) নির্ভুল প্রুফ দেওয়া হয়েছে কিনা সে নিয়েও রাজনীতির প্রতিমূর্তি নিউ নয়।

বিরোধীরা প্রচুর সময়ই সিলেক্টেড প্রতিনিধির শিক্ষাগত যোগ্যতার প্রমাণকে রাজনীতির অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করেন। কিন্তু বিধায়ক হওয়ার পরেও নিজের শিক্ষাগত যোগ্যতা বাড়িয়ে নেওয়ার ইচ্ছা বা প্রয়াস সচরাচর দেখা যায় না। বনগাঁর বিজেপি বিধায়ক তেমনই এক উদাহরণ রাখলেন।

বনগাঁ দক্ষিণের বিজেপি বিধায়ক স্বপন মজুমদার রবীন্দ্র মুক্ত স্কুল থেকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা দিলেন (Swapan Majumder BJP MLA appears in higher secondary exam)।

পরীক্ষা দিয়ে খুশি বিধায়ক। জানালেন পরীক্ষা বেশ ভালই হয়েছে। কিন্তু একাধার সমস্ত বিষয়ের পরীক্ষা দিচ্ছেন না বিধায়ক। জানা গেল, গত বছর অর্থাত্‍ ২০২২ সালে তিনটি বিষয় পরীক্ষা দিয়েছিলেন, আবার চলতি সালের ২টি ব্যপারে পরীক্ষা দেবেন তিনি। ইতিমধ্যেই বুধবার বনগাঁর কালীতলা বিশ্ববন্ধু শিক্ষা নিকেতন হাইস্কুলে এডুকেশন বিষয়ের পরীক্ষা দেন স্বপনবাবু।

হল হতে বেরিয়ে জানিয়ে দেন আগামী ১৯ তারিখ রাষ্ট্রবিজ্ঞানের পরীক্ষা আছে। সেদিনও আসবেন বিদ্যালয়ে পরীক্ষা দিতে। এদিন বিধায়কের গলায় শোনা গেল, 'শিক্ষার কোনও বয়স হয় না।' উচ্চমাধ্যমিকের পর স্নাতকেও ভর্তি হতে চান বিধায়ক।

প্রসঙ্গত, বিজেপি বিধায়ক স্বপন মজুমদারের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন গত বিধানসভা ভোটের তৃণমূল প্রার্থী আলোরানি সরকার। বনগাঁ বিধানসভার পৌরপ্রধান গোপাল শেঠও সন্দেহ প্রকাশ করেন স্বপন মজুমদারের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে। জল গড়ায় কোর্ট পর্যন্ত। সেই মামলার এখনও নিষ্পত্তি হয়নি। এর মধ্যেই উচ্চমাধ্যমিক দিয়ে ফেললেন স্বপন।

বিজেপি বিধায়কের উচ্চমাধ্যমিক দেওয়া নিয়ে ফের বিমুখ তৃণমূল। তাদের অভিযোগ, স্বপন মজুমদারের এইট সাইডের সার্টিফিকেট নেই। তারপরেও কীভাবে উচ্চমাধ্যমিক দেওয়ার জন্য পারেন তিনি, প্রশ্ন তুলছে বিরোধী শিবির। যদিও তাতে কুছ পরোয়া নেহি স্বপনের। আপাতত তিনি উচ্চশিক্ষিত হওয়ার স্বপ্নে বিভোর।

What's Your Reaction?

like

dislike

love

funny

angry

sad

wow

Tathagata Reporter